ICO কি এবং কিভাবে ICO তে বিনিয়োগ করবেন

ICO কি?

ICO এর পূর্নরুপ হল Initial Coin Offering যা একটি নতুন প্রজেক্টকে বাস্তবায়িত করার জন্য অর্থ উত্তোলনকে বোঝায়। আমরা সবাই কম বেশি শেয়ার মার্কেটের সাথে পরিচিত। ICO কি সেটা বুঝতে পারলে ICO তে বিনিয়োগ করে লাভবান হওয়া সম্ভব। শেয়ার মার্কেটে সাধারনত দুই ধরনের বিনিয়োগ করা যায়। এক, প্রাইমারি শেয়ার। দুই, সেকেন্ডারি শেয়ার। প্রাইমারি শেয়ারকে বলা হয় আই.পি.ও বা ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং। এই আই.পি.ও আর ক্রিপ্টোকারেন্সি মার্কেটের আই.সি.ও একই ধরনের বলা চলে।

আরো সহজ ভাষায় যদি বলি ICO কি, মনে করুন আপনার কাছে ক্রিপ্টোকারেন্সির দারুণ একটা আইডিয়া আছে। কিন্তু প্রজেক্ট শুরু করার জন্য যে বিনিয়োগ দরকার তা নেই। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার প্রজেক্টের বিস্তারিত মানুষের সাথে শেয়ার করে প্রজেক্টটা বাস্তবায়নের জন্য টাকা উত্তোলন করতে পারেন। অবশ্যই আপনার ভ্যালিড লাইসেন্স থাকতে হবে। পাশাপাশি আপনার প্রজেক্টের ভালো ভবিষ্যত থাকতে হবে।

এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে কেন অন্যান্য মানুষ আপনার প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করার জন্য আপনাকে টাকা দেবে? মুলত তারা আপনার প্রজেক্টে বিনিয়োগ করছে কারন তারা বিশ্বাস করে আপনার প্রজেক্টের ভবিষ্যত ভালো। তাদের বিনিয়োগের বিনিময়ে আপনি তাদের আপনার প্রজেক্টের কয়েন দেবেন। যেহেতু আপনার প্রজেক্ট ভালো, তারা এই ভেবে বিনিয়োগ করবে যে আপনার প্রজেক্ট থেকে যে কয়েন তারা পাবে সে কয়েনের দাম ভবিষ্যতে বাড়বে।

ইথেরিয়াম ছিল ক্রিপ্টোকারেন্সি জগতে প্রথম আই.সি.ও, ভিটালিক বুটারিন ২০১৪ সালে বিটকয়েনটকে একটা টপিক শুরু করেন যেখানে তিনি ইথেরিয়াম এর কথা শেয়ার করেন এবং তার প্ল্যান সম্পর্কে জানান। নিচে ইথেরিয়াম আই.সি.ও এর কিছু তথ্য দেয়া হল:
ইথেরিয়াম আই.সি.ও দাম- $০.৩১
সর্বমোট উত্তোলন- $১৬ মিলিয়ন

ইথেরিয়াম ব্লকচেইন অনেক যুগান্তকারী পরিবর্তন নিয়ে আসে। বিশেষ করে ইথেরিয়াম ব্লকচেইনের মাধ্যমে স্মার্ট কন্ট্রাক্ট এর সুবিধার জন্য এর জনপ্রিয়তা বাড়ে।
যাই হোক, মুল কথায় ফিরে আসি। আই.সি.ও তে যদি যথেষ্ট গবেষণা করে বিনিয়োগ করা যায় তাহলে লাভবান হওয়া যায়। যে ইথেরিয়াম এর আই.সি.ও মূল্য ছিল $০.৩১ তা বর্তমানে এই মুহুর্তে $১৩১, অল টাইম হাই তে যার দাম $১৫০০ মত হয়েছিল। ভালো আই.সি.ও পাওয়া অনেক কষ্টকর এবং বর্তমান মার্কেটে অনেকটা অসম্ভব। বর্তমানে বেশিরভাগ প্রজেক্ট স্ক্যাম করে কিংবা এমন প্রজেক্ট নিয়ে আসে যার কোন দাম নেই বললেই চলে।

কিভাবে ICO তে বিনিয়োগ করবেন?

ICO তে বিনিয়োগ করা অনেকটা কঠিন। এর মুল কারন হল বেশিরভাগ প্রজেক্ট স্ক্যামাররা নিয়ে আসতেছে। প্রকৃত কোন প্রজেক্ট তেমন একটা আসতেছে না। আসলেও সেখানে বিনিয়োগ করা খুব কঠিন হয়ে পড়ছে। যাই হোক, পর্যাপ্ত হোম ওয়ার্ক করে যদি ICO তে বিনিয়োগ করা যায় তাহলে আপনি কিছু প্রফিট করতে পারেন যদিও এই প্রফিটের হার এখন অনেক কম যা ২০১৭ তে অনেক বেশি ছিল। ICO তে বিনিয়োগ করতে হলে নিচের ব্যাপারগুলো খুব ভালোভাবে অনুধাবণ করতে হবে।

১. প্রজেক্ট এর খুটিনাটি বিশ্লেষণ- প্রথমেই আপনাকে প্রজেক্ট সম্পর্কে খুব ভালো ভাবে পড়তে হবে। তাদের ওয়েবসাইট এবং হোয়াইট পেপার থেকে যত সম্ভব পড়ে বুঝতে হবে প্রজেক্টটা মুলত কি নিয়ে। তারপর সেখান থেকে আপনাকে বুঝে নিতে হবে ওই প্রজেক্ট কি আসলে ভালো কিছু কি না, নতুন আইডিয়া কি না, বাস্তব জীবনে এই প্রজেক্ট কোন ভালো ফলাফল আনতে পারবে কি না। এইসব যদি ঠিক থাকে তাহলেই কেবল আপনি পরবর্তী ধাপে যাবেন। অন্যথায়, এই প্রজেক্ট নিয়ে আর কিছু দেখার প্রয়োজন পড়ে না।

২. টিম বিশ্লেষণ- যদি আপনার কাছে প্রজেক্ট আইডিয়া ভালো মনে হয় তাহলে আপনি এই প্রজেক্টের সাথে যে টিম আছে তাদের প্রোফাইল বিশ্লেষণ করতে পারেন। তারা যে টিম দেখাচ্ছে আদৌ কি সত্য কি না। স্ক্যাম প্রজেক্ট বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নকল টিম ব্যবহার করে। মানে অন্যের ছবি দিয়ে তারা টিম বানায় যাতে পরবর্তীতে কেউ তাদের খুজে না পায়। সেক্ষেত্রে আপনি গুগল ইমেজ সার্চ করে দেখে নিতে পারেন টিম আসল কি নকল।

৩. প্রজেক্ট লাইসেন্স- যদিও এইটা খুব কমই এফেক্ট ফেলে তবু আপনাকে দেখে নিতে হবে তাদের বৈধ বিজনেস লাইসেন্স আছে কিনা। না থাকলে স্ক্যাম করার সম্ভাবনা বেশি থাকে। এইটা কম এফেক্ট ফেলে এই জন্য বললাম যে ইথেরিয়াম এর কোন বৈধ লাইসেন্স বা কিছুই ছিল না। তাদের প্রজেক্ট আইডিয়া ছিল কিং আর সেটাই তাদের প্রজেক্টকে সফল করেছে। তাছাড়া তখন অহরহ প্রজেক্ট ও ছিল না যার কারনে তেমন স্ক্যামারও ছিল না।

এইসব যদি ঠিক থাকে তাহলেই আপনি ICO তে বিনিয়োগ করতে পারেন। বিনিয়োগ করতে হলে আপনাকে উক্ত প্রজেক্টের ওয়েবসাইটে গিয়ে বিনিয়োগ করার নিয়ম অনুসরণ করুন। ICO কি, কিভাবে ICO তে বিনিয়োগ করবেন বুঝতে অসুবিধা হলে কিংবা কোন প্রকার সাজেশন লাগলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

ICO নিয়ে সব আর্টিকেল পেতে ক্লিক করুন এইখানে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *